পরিস্থিতির স্কীকার হওয়া মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করুন

পাঠকের কলমে

পাঠকের কলমে, রাহানাতুল্লাহঃ
“করোনায় মরলে হয়তো আটকাতে পারব না, তবে অভাবের তাড়নায় না খেয়ে মরলে মুখ দেখাতে পারবো না।” গতকালকের পর থেকে রাজ্যের পরিস্থিতি সম্পূর্ণ না হলেও একটু পরিবর্তন হয়েছে। অন্ততপক্ষে বারাসাত সদরদপ্তরে না গেলে হয়তো বুঝতে পারতাম না। উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার একজন গুরুত্বপূর্ণ সরকারি আধিকারিকের সঙ্গে একটি আলোচনা ছিল।বারাসাত কোর্ট চত্বরে পৌঁছাতেই কিছুটা উপলদ্ধি করতে পেরেছিলাম। বারাসাত কোর্টের আইনজীবী। তরুণ প্রজন্মের উজ্জ্বল নক্ষত্র বিশিষ্ট আইনজীবী তারিকুর রহমানের সঙ্গে নিয়েই জেলা পরিষদের দপ্তরে গেলাম।কোনো মানুষের আনাগোনা নেই বললেই চলে।আগেই বললাম ,আগের থেকে পরিবেশ একটু হলেও পরিবর্তন হয়েছে। যাইহোক সকলেই ভালো থাকুক সুস্থ থাকুক।মাস্ক ব্যবহার করুন। সাবধানতা বজায় রাখুন। মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করুন। পরিস্থিতির শিকার হওয়া পরিবারের পাশে দাঁড়ান।